31 C
Dhaka

অগ্নিকাণ্ডে ৪ ঘর ও গৃহপালিত পশুপাখি পুড়ে ছাই, ৬ লাখ টাকার ক্ষতি

প্রকাশিত:

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ৪টি ঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এ ঘটনায় ৫ থেকে ৬ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে ক্ষতিগ্রস্ত রফিকুল ইসলাম ও রানী আক্তার দাবি করছেন। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে এ অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়।

উপজেলার ছোট ভাকলা ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের চর আন্ধার মানিক এলাকার মো. রফিকুল শেখের একটি রান্না ঘর ও তার মেয়ে রানী আক্তারের ১টি বসতঘর, ১টি রান্নাঘর, ১টি গোয়ালঘর, ৩টি ছাগল, ২০টি হাঁস ও মুরগী এবং ঘরে থাকা নগদ ১ লক্ষ টাকার স্বর্ণালঙ্কার, সব আসবাবপত্র, খাদ্যসামগ্রী এবং দলিল-দস্তাবেজসহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র পুড়ে ছাই হয়ে যায়। এতে দুই পরিবারের ৫ থেকে ৬ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

মো. রফিকুল শেখ বলেন, আমার মেয়ের যা ছিলো সব শেষ হয়ে গেছে। আগুনে পুড়ে আর কিছুই নেই তার। আমরা এখন একদম নিঃস্ব হয়ে গেছি। আমার মেয়ের সব মিলিয়ে ৫ লক্ষাধিক টাকার ও আমার ১ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

গোয়ালন্দ ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের লিডার মো. সাবেকুল ইসলাম জানান, আগুন লাগার খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে আধা ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে বসতবাড়ির আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এতে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। তবে ৩টি ছাগল, ২০টি হাঁস ওমুরগী, স্বর্ণালঙ্কার, সব আসবাবপত্র, খাদ্যসামগ্রী এবং দলিল-দস্তাবেজসহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র পুড়ে গেছে। তাৎক্ষণিকভাবে আগুন লাগার কারণ বিদ্যুৎ শর্টসার্কিট থেকে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে আগুনে পোড়া পরিবারের ক্ষয়ক্ষতি আমরা ধরাণা করছি সাড়ে ৪ লক্ষাধিক টাকার মতো।

ছোট ভাকলা ইউপি চেয়ারম্যান মো. আমজাদ হোসেন বলেন, খবর শুনে আমি ঘটনাস্থলে যাই। ইউনিয়ন পরিষদ থেকে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে সহযোগিতা করা হবে।

সম্পর্কিত খবর

সর্বশেষ খবর

spot_img