30 C
Dhaka

অস্ত্র হাতে ভাইরাল সেই যুবলীগ নেতার অস্ত্রের লাইসেন্স বাতিল

প্রকাশিত:

অস্ত্র হাতে ভাইরাল হওয়া কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার শ্রীপুর ইউনিয়নের যুবলীগ নেতা মোস্তফা মনিরুজ্জামান জুয়েলের আগ্নেয়াস্ত্রের লাইসেন্স বাতিল করেছে জেলা প্রশাসন।

কুমিল্লার জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে চৌদ্দগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শুভরঞ্জন চাকমা এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, জুয়েলের অস্ত্রের লাইসেন্স বাতিল করে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামরুল হাসান একটি চিঠি দিয়েছেন। জেলা প্রশাসকের চিঠিতে জানানো হয়, গত ১৪ জুলাই বৃহস্পতিবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে একটি ছবি ভাইরাল হয়, সেখানে মোস্তফা মনিরুজ্জামান জুয়েলের নামে ইস্যু করা অন্ত্র যা দেখতে অত্যাধুনিক ও সামরিক বাহিনীর অস্ত্রের মতো মনে হলেও পয়েন্ট ২২ (.২২) বোর জিএসজি-৫ মডেলের রাইফেল তিনি হাতে ধরে আছেন।

জার্মানির তৈরি এই অস্ত্রটি প্রদর্শন করে সাধারণ মানুষকে ভয়-ভীতি প্রদর্শন করায় তার মালিকানাধীন আগ্নেয়াস্ত্রটির লাইসেন্স বাতিলের সুপারিশের পরিপ্রেক্ষিতে সেটির লাইসেন্স প্রদান, নবায়ন ও ব্যবহার নীতিমালা-২০১৬-এর অনুচ্ছেদ ২ (ক) এবং অস্ত্রআইন ১৮৭৮-এর ১৮ (ক) ধারা অনুযায়ী কুমিল্লা জেলা প্রশাসক কার্যালয় থেকে ইস্যু করা তার আগ্নেয়াস্ত্রটির লাইসেন্স বাতিল করা হলো।

গত ১৪ জুলাই চৌদ্দগ্রাম উপজেলার ইউপি চেয়ারম্যান শাহজালাল মজুমদারের গাড়িতে হামলার অভিযোগে জুয়েলের আগ্নেয়াস্ত্র হাতে একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়। পরদিন মনিরুজ্জামান জুয়েলের স্ত্রী ফারজানা হক থানায় হাজির হয়ে ৮৬ রাউন্ড গুলিসহ অস্ত্রটি জমা দেন।

এরপর গত ১৭ জুলাই জুয়েলকে একটি চেক ডিজওনার মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানার পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকার বনানী থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এর পরদিন (১৮ জুলাই) পুলিশ জুয়েলকে আদালতে সোপর্দ করলে আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। বর্তমানে জুয়েল কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগারে আটক রয়েছেন।

সম্পর্কিত খবর

সর্বশেষ খবর

spot_img