31 C
Dhaka

আমিরাতের জালে আর্জেন্টিনার ৫ গোল

প্রকাশিত:

টানা ৩৮ ম্যাচ অপরাজিত, জিতেছিল কোপা আমেরিকা, ইউরোপ চ্যাম্পিয়ন ইতালিকে হারিয়ে ঘরে তুলেছিল ‘ফিনালিসিমা’ শিরোপাও। দুর্দান্ত ফর্মে থাকা এই আর্জেন্টিনার কাছে পাত্তাই পেলো না আরব আমিরাত।

কাতার বিশ্বকাপে যাওয়ার আগে নিজেদের প্রস্তুতি ভালোভাবেই নিয়েছেন লিওনেল মেসি ও দি মারিয়ারা।  

স্টেডিয়ামে আর্জেন্টিনা দল প্রবেশ করতেই সবার চোখ মেসির ওপর। বলে তার প্রতি স্পর্শে দর্শকরা উল্লাসে যেন ফেটে পড়েন। নিজেদের দেশেই যেন সফর করেছে আরব আমিরাত। প্রতিপক্ষ আর্জেন্টিনাকেই মনে হচ্ছিল স্বাগতিক দল। এমন ম্যাচে বল পায়ে জ্বলে উঠেছেন লিওনেল স্কালোনির শিষ্যরাও। আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে বুধবার রাতে আরব আমিরাতকে ৫-০ ব্যবধানে হারিয়ে বিশ্বকাপে প্রস্তুতি সারলেন তারা।

আবুদাবির মোহাম্মেদ বিন জায়েদ স্টেডিয়ামে ম্যাচের শুরু থেকেই স্বাগতিক আমিরাতকে চেপে ধরে আর্জেন্টিনা। ষষ্ঠদশ মিনিটে সফলও হয় দলটি। দি মারিয়া থেকে বল পেয়ে হুলিয়ান আলভারেসকে বক্সে বল বাড়ান মেসি। নিখুঁত শটে লক্ষ্যভেদ করতে ভুলেননি ম্যানচেস্টার সিটির এই তরুণ ফরোয়ার্ড। নয় মিনিট পর ব্যবধান আরও বাড়ান দি মারিয়া। মার্কোস আকুনার পাস ধরে বক্স থেকে দারুণ এক ভলিতে বল জালে পাঠান জুভেন্টাসের এই ফরোয়ার্ড।  

পাঁচ মিনিট পর আবারও গোল পান দি মারিয়া। বক্সে সতীর্থদের সঙ্গে বল দেওয়া নেওয়া করে সুন্দর শটে জাল খুঁজে নেন এই ফরোয়ার্ড। দশ মিনিট পর গোল করতে পারতেন মেসি। দি মারিয়া থেকে পাওয়া বল হেডে লক্ষ্যভেদ করতে পারেননি পিএসজির এই ফরোয়ার্ড। তবে প্রথমার্ধের শেষ মিনিটে কাঙ্ক্ষিত গোল পেয়ে যান তিনি। সেই দি মারিয়ার পাস থেকেই নিখুঁত শটে জাল খুঁজে নেন সাতবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী এই তারকা।

বিরতির পর খেলতে নেমে আগের মতোই আক্রমণ চালিয়ে যেতে থাকে আর্জেন্টিনা। তবে গোল পেতে বেশ কিছুক্ষণ অপেক্ষা করতে হয় তাদের। ৬০তম মিনিটে সেই সফলতা পায় দলটি। রদ্রিগো দে পল থেকে পাওয়া বল জালে পাঠান জোয়াকেন কোরেয়া। শেষদিকে বেশ কয়েকটি সুযোগ পায় আলবেলিস্তারা। তবে জাল খুঁজে পায়নি আর। তাতে অবশ্য সমস্যা হয়নি, বড় জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে দলটি।  

আগামী মঙ্গলবার (২২ নভেম্বর) সৌদি আরবের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ মিশন। গ্রুপ ‘সি’-তে তাদের সঙ্গী মেক্সিকো এবং পোল্যান্ডও।

সম্পর্কিত খবর

সর্বশেষ খবর

spot_img