30 C
Dhaka

এক কাপ চা খাওয়াতে চায় পাপনকে ‘সাকিব’

প্রকাশিত:

তার নাঈম শেখ। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসানকে খুশিমনে এক কাপ চা খাওয়াতে চায় নাঈম। না জাতীয় দলের ওপেনার নাঈম নন; এ নাঈমের বয়স চার কি পাঁচ। ক্লাস ওয়ানে পড়ছে সে। সাকিব ভক্ত সে। শুধু ভক্ত বললে কম হয়ে যাবে, পাড়ভক্ত বলা চলে। আর সাকিবের সেই খুদেভক্তই চা খাওয়াতে চান বিসিবি বসকে।

কারণ তার ভাবনা, বিসিবি সভাপতি সাকিবকে এশিয়া ও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের অধিনায়ক বানিয়েছেন। তাহলে পুরষ্কার হিসেবে এক কাপ চা পেতেই পারেন পাপন সাহেব। মিরপুর স্টেডিয়াম গেটে দাঁড়িয়ে সাংবাদিকদের কাছে এভাবেই ইচ্ছাপ্রকাশ করছিল নাঈম শেখ।

নাঈম সাংবাদিকদের বলে, পাপন ভাই সাকিব ভাইরে ক্যাপ্টেন বানাইছে। তাই তারে এক কাপ চা খাওয়ামু। সাকিব ভাই এশিয়া কাপে ক্যাপ্টেন হইছে আমার খুব ভাল্লাগে। সাকিবের এতোটাই ভক্ত নাঈম যে, বাবা-মায়ের রাখা নিজের নামটাই বদলে ফেলেছে সে। সে নিজের নামও রেখেছে সাকিব আল হাসান।

তোমার নাম কি জিজ্ঞেস করতেই নাঈম বলে ওঠে , ‘আমি সাকিব আল হাসান।’ এ নাম কে রেখেছে? নাঈমের উত্তর, আমি নিজেই নিজের নাম রাখছি সাকিব আলা হাসান। সাংবাদিকের ফের প্রশ্ন, নাঈম নামে তো জাতীয় দলে ক্রিকেটার আছেন।

প্রশ্ন মাটিতে পড়তেই দেয়নি সাকিবভক্ত, নাহ, সাকিব ভাই ছাড়া আর কোনো খেলোয়াড় ফেভারিট না আমার। তবে মাশরাফি আমার একটা ফেভারিট খেলোয়াড় ছিল,কিন্তা তাকে বাদ কইরা দিল। সৌম্যরেও বাদ কইরা দিল। উনি শুধু ক্যাচআউট হয়ে যায়। মোস্তাফিজ, তাসকিন, মেহেদী হাসান মিরাজও ভালো। তবে সাকিব আমার প্রিয়।

ক্রিকেটকে মনেপ্রাণে ভালোবাসে নাঈম শেখ। বড় হয়ে ক্রিকেটার হতে চায়। কিন্তু দুশ্চিন্তা হলো ব্যাট-বল নেই। এ খুদে ক্রিকেটভক্ত জানায়, আমি ব্যাটিংও করুম, বোলিংও করুম। সাকিবের মতো প্লেয়ার হমু। বাবা গাড়ি চালায়। মা অন্যের বাসায় কাজ করে। তারা ক্রিকেটের সরঞ্জাম কিনে দিতে সামর্থ্যবান নয়।

তবুও নাঈমের স্বপ্ন থেমে নেই। ক্রিকেটার হতে দৃঢ় প্রত্যয় ঝরল এ খুদের মুখে, প্রয়োজনে রিকশা চালামু, টাকা জমিয়ে ব্যাট-বল কিনমু। জাতীয় দলের সব ক্রিকেটারের সঙ্গে দেখা করতে আগ্রহী নাঈম। বিশেষ করে সাকিবের সঙ্গে দেখা করতে মরিয়া সে। নাঈম জানায়, খেলোয়াড়দের সঙ্গে দেখা করতেই মিরপুর স্টেডিয়ামের গেটে এসে দাঁড়িয়ে থাকে সে।

বলে, আমি সব প্লেয়ারের সাথে কথা বলতে চাই। প্লেয়ারদের দেখতে আমার ভালো লাগে। একবার নুরুল হাসান সোহান ভাইয়ের সাথে দেখা হইছিল। কিন্তু কথা হয়নি। সাকিব ভাইয়ের সাথে যদি একটু কথা কইতে পারতাম! আর একটা ছবি তুলতে চাই উনার সাথে। আমার নামও সাকিব। উনি আর না খেললে উনার বদলে আমি মাঠে নামুম। সাকিব ভাইয়ের সাথে দেখা হলে আমি উনার কাছ থেকে ব্যাটিং আর স্পিন বোলিং শিখতে চাই।

সম্পর্কিত খবর

সর্বশেষ খবর

spot_img