31 C
Dhaka

কোনো স্ত্রীকেই বিয়ের কথা গোপন রাখতে বলেননি, দাবি শাকিবের

প্রকাশিত:

একের পর এক সহ-অভিনেত্রীর সঙ্গে বিয়ে, সন্তান জন্মদান ও তা বছরের পর বছর ধরে গোপন রাখার ঘটনায় ব্যাপক সমালোচিত ঢালিউড কিংখ্যাত তুমুল জনপ্রিয় সুপারস্টার শাকিব খান। তবে বিয়ে এবং সন্তানের খবর গোপন রাখার দায়ভার একার উপর নিতে রাজি নন খান সাহেব। তার দাবি, সাবেক স্ত্রী চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস কিংবা বর্তমান স্ত্রী শবনম বুবলির কাউকেই তিনি বিয়ে কিংবা সন্তান গোপন রাখার কথা বলেননি।

বিয়ে ও সন্তানের খবর বছরের পর বছর ধরে গোপন রাখার ঘটনায় আত্মপক্ষ সমর্থন করে শাকিব খান বলেছেন, তিনি কখনোই অপু কিংবা বুবলীকে বিয়ে বা সন্তানের খবর গোপন রাখতে বলেননি।

অবশ্য নিজে বিষয়টি গোপন করেছেন বলে অকপটে স্বীকার করে নিয়েছেন শাকিব খান। এর পেছনে তিনি যুক্তি দেখিয়েছেন, ব্যক্তিগত জীবন জনসমক্ষে আনতে চাননি বলেই বিয়ে ও সন্তানের খবর বছরের পর বছর ধরে গোপন রেখেছিলেন তিনি।

শাকিব খানের ভাষ্য অনুযায়ী, তিনি পরিষ্কার করে জানিয়ে দিতে চান যে, ব্যক্তিগত বিষয় নিয়ে জনসমক্ষে কথা বলতে একদমই স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন না তিনি। মূলত এ কারণেই তিনি নিজের বিয়ে এবং সন্তানের খবর প্রকাশ্যে আনেননি। কিন্তু অপু কিংবা বুবলির কারও ক্ষেত্রেই ব্যক্তিগত মতামত প্রকাশে বাধার সৃষ্টি করেননি তিনি। অপু এবং বুবলি যেটা ভালো বুঝেছে সেটাই করেছে। তারা তাদের নিজেদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী কাজ করেছে। তাদের সিদ্ধান্ত গ্রহণে কখনোই হস্তক্ষেপ করেননি তিনি।  

শাকিব খান আক্ষেপ করে বলেছেন, তারা (অপু ও বুবলি) কেন বিয়ে বা সন্তান জন্মের পরপরই সবাইকে জানায়নি- এটাও কি আমার অপরাধ?

উল্লেখ্য, গত ৩০ সেপ্টেম্বর দুপুর ১২টার দিকে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুকে পেজে ছেলের বেশ কয়েকটি ছবি প্রকাশ করে বুবলি লেখেন, আমরা চেয়েছি একটি শুভ দিনক্ষণ দেখে আমাদের সন্তানকে সবার সম্মুখে আনতে। তবে আল্লাহ যা করেন ভালোর জন্যই করেন। সুখবরটি জানানোর জন্য আর বেশিদিন অপেক্ষা করতে হয়নি। শেহজাদ খান বীর আমার এবং শাকিব খানের সন্তান। আমাদের ছোট্ট রাজপুত্র। আমার সন্তান আমার গর্ব, আমার শক্তি। আপনাদের সবার কাছে আমাদের সন্তানের জন্য দোয়া কামনা করছি।

এছাড়া ৩০ সেপ্টেম্বর দুপুর ১২টার দিকে প্রায় একই রকম বক্তব্য দিয়ে শাকিব খান তার ভেরিফায়েড ফেসবুক অ্যাকাউন্টে ছেলের সঙ্গে একটি ছবি পোস্ট করেন।

ফেসবুকে ছেলের সঙ্গে ছবি পোস্ট করার পাশাপাশি শাকিব খান লেখেন, আমরা চেয়েছিলাম একটি শুভ দিনক্ষণ দেখে আমাদের সন্তানকে সবার সম্মুখে আনতে। তবে আল্লাহ যা করেন ভালোর জন্যই করেন। সুখবরটি জানানোর জন্য আর বেশিদিন অপেক্ষা করতে হয়নি। শেহজাদ খান বীর আমার এবং বুবলির সন্তান। আমাদের ছোট্ট রাজপুত্র। আমার সন্তান আমার গর্ব, আমার শক্তি। আপনাদের সবার কাছে আমাদের সন্তানের জন্য দোয়া কামনা করছি।

জানা যায়, ২০২০ সালের ২১ মার্চ বুবলি মা হন যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের লং আইল্যান্ড জ্যুইশ মেডিকেল হাসপাতালে। সেখানে তিনি পুত্র সন্তানের জন্ম দেন। তাদের সন্তানের নাম রাখা হয় শেহজাদ খান বীর।

২০২০ সালে সন্তান জন্মের আগেই বুবলি সবার আড়ালে চলে যান। ২০২০ সালের জানুয়ারিতে এমিরেটস এয়ারলাইনসের একটি বিমানের চেপে বুবলি যুক্তরাষ্ট্রে চলে যান। ৯ মাস পর তিনি আবার সবার সামনে আসেন। তারপর ব্যস্ত হয়ে পড়েন কাজকর্মে। আড়ালে যাওয়ার আগে তিনি ‘বীর’ ও ‘ক্যাসিনো’ ছবির শুটিং করেন।

‘বসগিরি’ ছবিতে শাকিব খানের বিপরীতে অভিনয় করে আলোচনায় আসেন বুবলি। ছবিতে অভিনয় করতে গিয়ে একটা পর্যায়ে তাদের প্রেমের গুঞ্জন শোনা যায়। শাকিবের সঙ্গে বুবলির প্রেমের গুঞ্জন কয়েক বছর ধরেই চলছিল।

এসব গুঞ্জনের এক ফাঁকে ২০১৭ সালের মার্চে প্রথম দুজনের প্রেমের খবর সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হয়। প্রেম ও বিয়ে নিয়ে একাধিক গুঞ্জন শোনা গেলেও দুজনের কেউই এই বিষয়ে খোলামেলা কিছুই বলেননি।

গত ২৭ সেপ্টেম্বর বুবলি তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে বেবি বাম্পের দুটি ছবি পোস্ট করেন। সেখানে বুবলি লেখেন, মি উইথ মাই লাইফ, থ্রো ব্যাক আমেরিকা। এতেই রহস্যের দানা বাঁধতে শুরু করে। প্রশ্ন ওঠে, বুবলির সন্তানের বাবা কে?

বিষয়টি নিয়ে দফায় দফায় কথা হতে থাকে বুবলি ও শাকিবের সঙ্গে। সন্তানের বিষয়ে স্পষ্ট কিছু না বললেও তারা দুজনেই বিষয়টি সময়মতো সবার সামনে আনবেন বলে জানান। অবশেষে সব জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে তারা দুজনেই বিয়ে ও সন্তানের ঘোষণা দেন জনসমক্ষে।

এর আগে ২০০৮ সালে চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাসকে বিয়ে করেছিলেন শাকিব খান। বছরের পর বছর ধরে বিষয়টি গোপন রাখার পর প্রায় ৮ বছর পর ২০১৬ সালে সন্তানকে মিডিয়ার সামনে নিয়ে আসেন অপু বিশ্বাস। শাকিব খানের সঙ্গে বিয়ে ও সন্তানের খবর ফাঁস করে দিয়ে দেশজুড়ে তোলপাড় তোলেন অপু বিশ্বাস।

শাকিবের গোপন বিয়ে ও সন্তানের খবর ফাঁস করে দেয়ার শাস্তি হিসেবে অপু বিশ্বাসকে তালাক দেন শাকিব খান। একমাত্র সন্তান জয়কে নিয়ে আলাদা থাকতে শুরু করেন অপু বিশ্বাস।

সম্পর্কিত খবর

সর্বশেষ খবর

spot_img