26 C
Dhaka

গলাচিপায় বিভিন্ন প্রজাতির বিদেশী আম চাষ

প্রকাশিত:

থোকায় থোকায় ঝুলছে রঙিন আম। প্রথমে দেখে কনো ভাবে বোঝার উপায় নেই এগুলো আম। দেশের প্রচলিত পাকা আমের রঙ হয় হলুদ ও লাল। তবে এগুলো পাকলে পুরোটাই বেগুনি রঙের হয়ে যায় । অবশ্য ভেতরের রঙ ঠিকই লাল।

পটুয়াখালীর গলাচিপা অঞ্চলের মাটির উর্বরতা বেশি থাকা ও প্রাকৃতিক আবহাওয়ার কারণে দেশের অন্যান্য অঞ্চলের চেয়ে অন্তত এক মাস পূর্বে এসব আমের ফলন উঠে যায় কৃষিরা বলে। তাই কৃষকরা এসব আম চাষে বেশি লাভবান হয়ে থাকে।

গলাচিপা পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ড ফিডার রোড সংলগ্ন এলাকায় মো. পলাশ আহম্মেদ নিজে ঢাকাতে চাকুরীজীবী হয়েও শখের বশে নিজ বাড়ির আঙিণায় প্রায় আট শতক জমিতে ৪০টি বিভিন্ন প্রজাতির বিদেশি আম গাছের চারা রোপন করে মাত্র তিন বছরে আমের ফলন পেয়ে সফলতা অর্জন করেছেন তিনি। তার চাষকৃত অত্যন্ত দামী ও সুস্বাদু গাছের মধ্যে রয়েছে সূর্যডিম, ফিলিপাইন জাত, চাকাবয়, গৌরমতি, আর টু ই টু, পিন ম্যাংগো, জিয়াংমাই, ফিলিপাইন সুইট, তকমাই, থাইল্যান্ডের ব্যানানা ম্যাংগো, থাইল্যান্ডের ভ্যারাইটি ও হানিডু আম গাছ গুলো।

প্রতিটি আমের ওজন তিনশত থেকে আটশত গ্রাম পর্যন্ত হয়ে থাকে এগুলো। প্রতিটি গাছের উচ্চতা চার থেকে আট ফুট পর্যন্ত হয়। এসব গাছে পর্যাপ্ত ফলন ধরে সবসময়।

সম্পর্কিত সংবাদ

spot_img

সর্বশেষ সংবাদ

spot_img