27 C
Dhaka

চেক ডিজঅনার মামলায় কারাগারে পাঠানো সংবিধান পরিপন্থী

প্রকাশিত:

চেক ডিজঅনার মামলায় কোনো ব্যক্তিকে কারাগারে পাঠানো সংবিধান পরিপন্থী বলে উল্লেখ করেছেন হাইকোর্ট।

রোববার, ২৮ আগস্ট এ সংক্রান্ত কয়েকটি মামলা নিষ্পত্তির রায়ে বিচারপতি মো. আশরাফুল কামালের একক হাইকোর্ট বেঞ্চ এমন পর্যবেক্ষণ দিয়েছেন। রায়ের পর্যবেক্ষণে চেক ডিজঅনার মামলায় কোনো ব্যক্তিকে করাগারে পাঠানো সংবিধান পরিপন্থী বলে উল্লেখ করেছেন আদালত।

আদালতের রায়ে বলা হয়েছে, কোনো ব্যক্তিকে তার ব্যক্তি স্বাধীনতা থেকে বঞ্চিত করার অর্থ হলো সংবিধানের ৩২ অনুচ্ছেদের লঙ্ঘন করা। নেগোসিয়েবল ইস্ট্রুমেন্ট (এনআই) অ্যাক্ট , ১৯৮১-এর ১৩৮ ধারায় চেক ডিজঅনার মামলায় কোনো ব্যক্তিকে কারাগারে আটকে রাখা ওই ব্যক্তির স্বাধীনতা হরণের মতোই।

আদালত তার রায়ের মাধ্যমে নেগোসিয়েবল ইনস্ট্রুমেন্ট আইনের ১৩৮ ধারা সংশোধনের মাধ্যমে চেক ডিজঅনার মামলায় কারাগারে পাঠানোর বিধান বাতিল করার জন্য জাতীয় সংসদকে পরামর্শ দিয়েছেন। পাশাপাশি নেগোসিয়েবল ইনস্ট্রুমেন্ট অ্যাক্টের ১৩৮ ধারা সংশোধিত না হওয়া পর্যন্ত চেক ডিজঅনারের মামলা নিষ্পত্তির জন্য একটি গাইডলাইনও দেয়া হয়েছে।

আদালতের রায় অনুযায়ী, কারও ব্যক্তিস্বাধীনতা থেকে তাকে বঞ্চিত করা অনুচিত। বিষয়টি সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক ও পরিপন্থী। নেগোসিয়েবল ইনস্ট্রুমেন্ট অ্যাক্টের আওতায় চেক ডিজঅনার মামলায় কাউকে কারাগারে বন্দী রাখা ব্যক্তিগত স্বাধীনতা হরণেরই নামান্তর মাত্র। চেক ডিজঅনার মামলায় কাউকে কারাগারে পাঠানো বা কারাগারে রাখা সংবিধানের ৩২ অনুচ্ছেদের পরিপন্থী। শুধু তাই নয়, ইন্টারন্যাশনাল কভেন্যান্ট অন সিভিল অ্যান্ড পলিটিক্যাল রাইটস (ওএইচসিএইচআর)-এর ১১ অনুচ্ছেদেরও পরিপন্থী।

বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল কভেন্যান্ট অন সিভিল অ্যান্ড পলিটিক্যাল রাইটসে স্বাক্ষর করেছে। কাজেই এদেশে চেক ডিজঅনার মামলায় কোনো ব্যক্তিকে কারাগারে পাঠানো ঠিক নিয়।

বিশ্বের বিভিন্ন উন্নত দেশ যেমন অস্ট্রেলিয়া, যুক্তরাজ্য, সিঙ্গাপুর, ফ্রান্সসহ বিভিন্ন দেশে চেক ডিজঅনার মামলায় কারাগারে পাঠানোর বিধান নেই। এসব দেশে চেক ডিজঅনারের মামলাগুলো দেওয়ানি প্রকৃতির মামলা হিসেবে বিবেচনা করা হয়। বাংলাদেশ নেগোসিয়েবল ইনস্ট্রুমেন্ট পূরণের ব্যর্থতার কারণে কাউকে কারাগারে আটকে রাখা যাবে না। চুক্তিগত দায়িত্ব পূরণে ব্যর্থতার জন্য যদি কারাগারে পাঠানো হয়, তাহলে শিগগির বাংলাদেশের অধিকাংশ মানুষ কারাগারে চলে যাবে যা মোটেও কাম্য নয়।

সম্পর্কিত খবর

সর্বশেষ খবর

spot_img