28 C
Dhaka

জীবিত অবস্থায় বেহেশত পাওয়া যায় না : বাণিজ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত:

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, জিনিসপত্রের দাম বাড়লে মানুষের কষ্ট হবে। তবে দেশের মানুষ বেহেশতে আছে, আমি তা জানি না। বেহেশত-দোজখ তো মানুষ মারা গেলে বুঝতে পারে।

আজ রোববার রংপুর মহানগরীর সেন্ট্রাল রোডের বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ সব কথা বলেন।

বিএনপি-জাতীয় পার্টিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের চলমান আন্দোলন কর্মসূচি প্রসঙ্গে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বৈশ্বিক সংকট পুঁজি করে গণতান্ত্রিকভাবে আন্দোলন করলে সরকার বাঁধা দেবে না। কিন্তু মানুষকে কষ্ট দিয়ে আন্দোলনের নামে হিংসাত্মক কিছু করা হলে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তাদের ওপর অর্পিত দায়িত্ব পালন করবে।

তিনি আরও বলেন, জাতীয় পার্টি ক্ষমতায় ছিল, বিএনপিও ছিল। এ কারণে তাদের আচরণও গণতান্ত্রিক হওয়া উচিত। তাহলে দেশে গণতান্ত্রিক চর্চাটা অব্যাহত থাকবে। নয়তো উন্নয়ন ও গণতন্ত্র চর্চার ধারাবাহিকতা ব্যাহত হবে।

টিপু মুনশি বলেন, বাংলাদেশ শ্রীলংকা হয়ে যাচ্ছে এ কথাটি সঠিক নয়। রাজনীতির খাতিরে হয়তো কোনো কোনো রাজনৈতিক দল এটি বলছে। আশপাশের অনেক দেশের তুলনায় আমাদের অর্থনৈতিক অবস্থা ভালো রয়েছে। বিশ্ব বাজারে ভোজ্যতেলের দাম কমলেও দেশে ডলারের দাম বেড়েছে। ফলে দেশে আমদানি নির্ভর নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বাড়ছে। সাধারণ মানুষ কষ্টে আছে, সেটা অস্বীকার করার সুযোগ নেই। মানুষের কষ্ট বেড়েছে, সেই কষ্ট যাতে না থাকে, সেজন্য সরকার কাজ করে যাচ্ছে। বিশ্ব বাজারের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ দাম নির্ধারণে ট্যারিফ কমিশন কাজ করছে।

এ সময় রংপুর মহানগর, জেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে সকালে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে নীলফামারীর সৈয়দপুর বিমানবন্দরে অবতরণ করেন। এরপর সেখান থেকে রংপুরে আসেন।

সম্পর্কিত খবর

সর্বশেষ খবর

spot_img