27 C
Dhaka

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় প্রবীর সিকদারসহ চার সাংবাদিক

প্রকাশিত:

উত্তরাধিকার ৭১ নিউজে দুটি সত্য ও তথ্যবহুল বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশের পর মুক্তিযুদ্ধ ধারার দৈনিক বাংলা ৭১ এবং উত্তরাধিকার ৭১ নিউজের সম্পাদক ও বিশিষ্ট সাংবাদিক প্রবীর সিকদারসহ চার সাংবাদিকের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়েছে (মামলা নং-২৭৩/২২)। মামলার অপর তিন আসামি উত্তরাধিকার ৭১ নিউজ এবং দৈনিক বাংলা ৭১ নিউজের বিশেষ প্রতিনিধি গৌরাঙ্গ দেবনাথ অপু, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অনলাইন নিউজ পোর্টাল তেপান্তর ডটকমের সম্পাদক সীমান্ত খোকন এবং প্রকাশিত খবর দুটির প্রতিবেদক।

বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর থানা শাখার সাধারণ সম্পাদক সীতানাথ সূত্রধরের ছেলে ব্যবসায়ী সুভাষ সূত্রধর চট্টগ্রাম সাইবার ট্রাইবুনাল আদালতে মামলাটি দায়ের করেছেন। দেশের বরেণ্য সাংবাদিক প্রবীর সিকদারসহ মোট চারজন সাংবাদিকের বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া এই মামলার ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছে বিভিন্ন মহল।

মামলার বিবরণ থেকে জানা যায়, প্রবীর সিকদারের সম্পাদনায় উত্তরাধিকার ৭১ নিউজে ২০২১ সালের ২৮ মে ‘হামলাকারী সীতানাথ সূত্রধরের একমাত্র ছেলে সুভাষ সূত্রধরকে আজ সকালে চালান করা হয়েছে’ শিরোনামে একটি খবর প্রকাশিত হয়। এতে বাদীর মানহানী হয়। এছাড়া চলতি বছরের ১৯ এপ্রিল একই পত্রিকায় বাদীর পিতা সীতানাথ সূত্রধরের বিরুদ্ধে ‘অপকর্মের প্রতিবাদ করায় নবীনগরে এক ব্যবসায়ীকে হত্যার হুমকি দিল সেই বিতর্কিত সীতানাথ’ শিরোনামে আরেকটি খবর প্রকাশিত হয়। এতে বাদীর পিতার মানহানী হয় বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়।

মামলার বিবরণ থেকে আরও জানা যায়, একই রকম দুটি খবর একই শিরোনামে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার তেপান্তর ডটকম নিউজ পোর্টালেও প্রকাশিত হয়। মামলায় প্রকাশিত সংবাদ দুটিকে ‘মিথ্যা ও মানহানিকর’ দাবি করে এতে বাদী সুভাষ সূত্রধর ও তার বাবা নবীনগর হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সীতানাথ সূত্রধরের সামাজিক ও কর্ম জীবনের মান-সম্মান ক্ষুন্ন করা হয়েছে বলে অভিযোগ করা হয়।

এ প্রসঙ্গে সাংবাদিক গৌরাঙ্গ দেবনাথ অপু বলেন, যখন যা ঘটেছে একজন সাংবাদিক হিসেবে আমি তা পত্রিকায় তুলে ধরেছি। মূলত আমার সাহসী সাংবাদিকতাকে বন্ধ করতেই সীতানাথ একটি চিহ্নিত প্রভাবশালী মহলের সহযোগিতা নিয়ে আমার বিরুদ্ধে একের পর এক মিথ্যা মামলা করে যাচ্ছেন। এজন্য আমি আর্থিক, শারীরিক ও মানসিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছি। একের পর এক মামলা দিয়ে আমাকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয়া হচ্ছে। বঙ্গবন্ধুকন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে প্রতিকার চাচ্ছি আমি।

সম্পর্কিত খবর

সর্বশেষ খবর

spot_img