30 C
Dhaka

নকলায় সন্তানকে স্কুলে দিতে এসে সড়কে প্রান গেল পিতা-পুত্রের।

প্রকাশিত:

লেখাপড়া শিখে মানুষের মত মানুষ হবে। এই স্বপ্ন দেখতেন শেরপুরের নকলা উপজেলার কলাপাড়া গ্রামের কৃষক হানিফ(৪২) ও ছেলে পিয়াস (১১) ।

বাবা হানিফ ও তার ছেলে পিয়াস সেই স্বপ্ন ঘাতক ট্রাক কেড়ে নিয়েছে, আজ ২৩ শে আগস্ট মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৭ টায় নকলা সাব রেজিস্টার কার্যালয়ে সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে । দুর্ঘটনায় ট্রাকের বডির নিচে ঝুলিয়ে ছিল দুর্ঘটনা কবলিত বাইসাইকেল সামনের অংশ।

নকলায় সন্তানকে স্কুলে দিতে এসে সড়কে প্রান গেল পিতা-পুত্রের।
নকলায় সন্তানকে স্কুলে দিতে এসে সড়কে প্রান গেল পিতা-পুত্রের।

প্রত্যক্ষদর্শী স্থানীয় এলাকাবাসী তারেক হাসানের বর্ণনা সূত্রে জানায়, প্রতিদিন কলাপাড়া গ্রামের কৃষক হানিফ তার পুত্র পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্র পিয়াস কে নিয়ে স্থানীয় রইস উদ্দিন একাডেমীতে সাইকেলে করে আসা যাওয়া করতো ।

নকলায় সন্তানকে স্কুলে দিতে এসে সড়কে প্রান গেল পিতা-পুত্রের।
নকলায় সন্তানকে স্কুলে দিতে এসে সড়কে প্রান গেল পিতা-পুত্রের।

আজ সেই স্কুলের একটু পাশেই ঘুমন্ত ট্রাক ড্রাইভারের চাপায় পিষ্ট হয়ে বাবা হানিফ মৃত্যু বরন করেন আর মেধাবী স্কুল ছাত্র পিয়াস কে দ্রুত ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করার পর কর্তব্য রত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নকলা পৌরসভার ৯ নং কলাপাড়া ওয়ার্ড কমিশনার ইন্তাজ আলী । স্থানীয় এলাকাবাসী নকলা পৌরসভার কর আদায় কর্মকর্তা মোশারফ হোসেন জানান যে,আজকের এই দুর্ঘটনার অন্যতম কারন ছিল রাস্তার পাশে দাঁড়ানো মাটি কাঁটার ট্রাকটরের সারি যার কারনে ইতিমধ্যে কয়েকটি দুর্ঘটনা ঘটেছে।

নকলায় সন্তানকে স্কুলে দিতে এসে সড়কে প্রান গেল পিতা-পুত্রের।
নকলায় সন্তানকে স্কুলে দিতে এসে সড়কে প্রান গেল পিতা-পুত্রের।

নকলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মুশফিকুর রহমান জানান,ঘাতক ট্রাক ঢাকা মেট্রো-ট ২৪-৭১৩০ আটক করা হয়েছে। চালক পলাতক রয়েছেন । ইতিমধ্যে মামলা দায়ের প্রস্তুতি চলছে।

সম্পর্কিত খবর

সর্বশেষ খবর

spot_img