20 C
Dhaka

নলকূপের পাইপ থেকে বের হচ্ছে গ্যাস, চলছে রান্নার কাজ

প্রকাশিত:

পারিবারিকভাবে দীর্ঘদিন ধরে নলকূপটি নিরাপদ খাবার পানিসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় কাজে ব্যবহার হয়ে আসছিল। গেল দুই বছর ধরে পানি সরবরাহের পাশাপাশি নলকূপটির ভেতর থেকে প্রতিনিয়ত ফুটন্ত শব্দের আওয়াজ লক্ষ্য করা যায়। বিষয়টি নিয়ে খটকা থাকায় স্থানীয় লোকজনকে ডেকে এনে তা দেখান আলাল মিয়া। কোনোভাবে সুরাহা না পেয়ে এক পর্যায়ে পানির ব্যবহার বন্ধ করে দেন। কিছুদিন পর পরিচিত একজনের পরামর্শে দিয়াশলাই দিয়ে আগুন ধরালে এরপর গ্যাস উদগিরণের বিষয়টি নিশ্চিত হন। এতে আশপাশের এলাকায় এ খবর ছড়িয়ে পড়ে।

পরিত্যক্ত একটি নলকূপের পাইপ থেকে জ্বালানি গ্যাস বের হচ্ছে বলে দাবি করেছেন আলাল জাহানারা দম্পত্তি। তাদের ভাষ্যমতে, ওই স্থানে আগুন ধরিয়ে দিলে তা দীর্ঘসময় ধরে জ্বলছে। আশপাশের কয়েকটি পরিবার ওই গ্যাস দিয়ে রান্নার কাজ করছেন। গত চারদিন ধরে এমন অবস্থার সৃষ্টি হলে কৌতূহল নিয়ে তা দেখতে আশপাশের লোকজন ঘটনাস্থলে ভিড় করছেন। ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট উপজেলার ভূবনকুড়া ইউনিয়নের উত্তর পলাশতলা গ্রামের জাহানারা আলাল দম্পত্তির বসত সংলগ্নে দেখা মিলে এমন চিত্র।

বাড়ির মালিক আলাল মিয়া জানান, মানুষের নানা প্রশ্নের জবাব দিতে গিয়ে হিমশিম খাচ্ছি। গ্যাসের ব্যবহার সম্পর্কেও পরিবারের কারো ধারণা নেই। তবে লোকজনের পরামর্শে গ্যাস থেকে রান্নার কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। প্রশাসনের নিকট গ্যাসের পরীক্ষা-নিরীক্ষা ব্যাপারে জোর দাবি জানান তিনি।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, এখন পর্যন্ত স্থানীয় ইউপি সদস্য ছাড়া ঘটনাস্থল কেউ পরিদর্শন করেনি। অপরদিকে হালুয়াঘাট ফায়ার সার্ভিস সিভিল ডিফেন্সের দায়িত্বপ্রাপ্ত এক কর্মকর্তা জানান, বিষয়টি অরক্ষিত থাকায় স্পর্শকাতর বলা যেতে পারে। সংশ্লিষ্ট গবেষণা দফতরের কর্মকর্তারা না আসা পর্যন্ত জায়গাটির নিরাপত্তা দেওয়ার পাশাপাশি সর্তীকরণের ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান।

তিতাস গ্যাস রক্ষণাবেক্ষণ কাজে নিয়োজিত মোস্তফা হোসেন নামে এক ব্যক্তি জানান, ভূ-গর্ভস্থ থেকে পানির স্তর শুকিয়ে আর্বজনা পঁচে ফিল্টারের সাহায্যে গ্যাসের সৃষ্টি হতে পারে। মাটির নিচ থেকে উঠে আসা গ্যাস থেকে আগুন ধরবে এটিই স্বাভাবিক। তবে অন্যান্য গ্যাসের তুলনায় এর গতিবেগ একেবারেই কম ও গন্ধবিহীন। হঠাৎ সন্ধান পাওয়া গ্যাস উদগিরণের বিষয়গুলো স্থায়ী হয় না।

এ বিষয়ে হালুয়াঘাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. সোহেল রানা বলেন, কি ধরনের গ্যাস বের হচ্ছে পরীক্ষা নিরীক্ষার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হবে। তারা পরিদর্শন করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে।

সম্পর্কিত সংবাদ

spot_img

সর্বশেষ সংবাদ

spot_img