27 C
Dhaka

বিধবার শতবর্ষী ঘর ভাংচুর ও লুট

প্রকাশিত:

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় মিরুখালীর ছোট হারজী গ্রামের বিধবা মঞ্জু রানী বেপারীর (৬২) শতবর্ষী ঘর ভাংচুর করে লুট করার অভিযোগ উঠেছে।

ঘটনার পর থানার বিরুদ্ধে মামলা নিতে গড়িমসির অ‌ভি‌যোগও পাওয়া গে‌ছে। পরবর্তী সম‌য়ে পুলিশের উর্ধতন কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করলে মামলা নেয় থানা। ত‌বে ভাংচুর ও লুট মামলা না নিয়ে চুরির মামলা নেয় থানা।

মিরুখালীর ছোট হারজী গ্রামের মৃত শিবাশীষ বেপারীর স্ত্রী বিধবা মঞ্জু রানী বেপারী।

ঘটনার পর প্রেসক্লাবে বিধবা মঞ্জু রানী বেপারীর দেবর স্বপন কুমার বেপারী এক সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে এসব অভিযোগ করেন।

লিখিত বক্তব্য ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, শিবাশীষ বেপারীর মৃত্যুর পর তার স্ত্রী ও ২ ছেলে ব্যবসায়িক কারণে যশোরে অবস্থান করায় তাদের বসতঘরটি তালাবদ্ধ থাকে। এ সুযোগে শিবাশীষের চাচাতো ভাই সুব্রত বেপারীর লোলুপ দৃষ্টি পড়ে ওই বসতবাড়ির উপর।

সম্প্রতি সুভাষ বেপারীর নেতৃত্বে ১৮ থেকে ২২ জন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে বিধবা মঞ্জু বেপারীর বসতঘরটি ভেঙ্গে মাটিতে গুঁড়িয়ে দেয়। এরপর তারা ঘরের মূল্যবান কাঠ, টিন, ঘরে রক্ষিত মূল্যবান খাট, আলমা‌রিসহ দশ লক্ষ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়।

ঘটনার সময় মঠবাড়িয়া থানায় বারবার যোগাযোগ করা হয়। প‌রে ৯৯৯ নম্ব‌রে ফোন দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। ততক্ষণে দুর্বৃত্তরা মালামাল নিয়ে পালিয়ে যায়।

এই ঘটনায় থানায় মামলা করতে গেলে থানা পুলিশ গড়িমসি করতে থাকে। পরবর্তীতে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার পর চুরির মামলা নেয় থানা পুলিশ।

এ বিষয়ে মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ও‌সি) নুরুল ইসলাম বাদল বলেন, বাদী যেভাবে লিখিত অভিযোগ দিয়েছে আমরা মামলা সেভাবে নিয়েছি। ওই সময় তাৎক্ষণিকভাবে দুজনকে ধরে আদালতে সোপর্দ করি।

সম্পর্কিত খবর

সর্বশেষ খবর

spot_img