28 C
Dhaka

বৃদ্ধের লালশার শিকার বালক, ২৫ হাজার টাকায় দফা রফা!

প্রকাশিত:

কুড়িগ্রাম জেলার নাগেশ্বরী উপজেলায় ৫০ বছরের এক বৃদ্ধ ৭ বছর বয়সী এক শারীরিক প্রতিবন্ধী ছেলেকে জো-র-পূ-র্ব-ক ব-লা-ৎ-কা-র করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। সম্প্রতি ঘটনাটি ঘটেছে নাগেশ্বরী উপজেলার হাসনাবাদ ইউনিয়নের মধ্য শ্রীপুরে।

অভিযুক্ত বৃদ্ধের নাম মকবুল হোসেন (৫০)। সে হাসনাবাদ ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের মধ্য শ্রীপুরস্থ বাহির কুটির গ্রামের মরহুম ঘুঘু মিয়ার পুত্র।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, শারীরিক প্রতিবন্ধী ছেলেটির অসুস্থ মাকে নিয়ে তার বাবা চিকিৎসার জন্য বাইরে গেলে ফাঁকা বাড়িতে একা পেয়ে ছেলেটিকে মকবুল মিয়া ব-লা-ৎ-কা-র করে। পরে ছেলেটির বাবা-মা বাড়িতে এলে সে সব ঘটনা খুলে বলে।

এই ঘটনার পর ভুক্তভোগী পরিবার থানায় অভিযোগ করতে চাইলেও স্থানীয় ইউপি সদস্য শাহ জালালসহ গ্রামের আরো কয়েকজন মিলে মীমাংসার কথা বলে সময় পার করছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এই ঘটনায় স্থানীয় শাহ জালাল মেম্বার, সাবেক মেম্বার তৈয়ব আলী সহ গ্রামের আরো কয়েকজন মিলে ব-লা-ৎ-কা-র-কা-রী মকবুল মিয়াকে ত্রিশ হাজার টাকা জরিমানা করে। পরে পাঁচ হাজার টাকা মওকুফ করে তারা। এভাবে মাত্র পঁচিশ হাজার টাকায় দফা রফা করা হয়।

এদিকে ভুক্তভোগী ছেলেটির বাবা জানান, জরিমানা বাবদ তাকে কোনো টাকা-পয়সা দেয়া হয়নি। এমতাবস্থায় এই ঘটনায় সুবিচার না পাওয়ার আশংকা করছে ভুক্তভোগী ছেলেটির পরিবার।

উল্লেখ্য, ভুক্তভোগী ছেলেটির বাবার বাড়ি মূলত নাগেশ্বরী পৌরসভার আরাজিকুমরপুরে। কিন্তু তিনি ভূমিহীন হওয়ার কারণে হাসনাবাদ ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডে ইউনুস আলীর জায়গায় বসত ঘর তুলে পরিবার-পরিজন নিয়ে বসবাস করে আসছেন।

সম্পর্কিত খবর

সর্বশেষ খবর

spot_img