27 C
Dhaka

ভারতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বাংলাদেশি জেলের মৃত্যু

প্রকাশিত:

বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপের কারণে ট্রলার ডুবে ভাসতে ভাসতে ভারতে গিয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইউনুস গাজী (৪৭) নামের এক জেলের মৃত্যু হয়েছে। রোববার সকাল ১০টার সময় বরগুনা জেলা মস্যজীবী ট্রলার মালিক সমিতির সভাপতি গোলাম মোস্তফা চৌধুরী ভারত থেকে মোবাইল ফোনে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

শুক্রবার সকালের দিকে ইউনুস গাজীর মৃত্যু হয়েছে। মৃত্যুর খবর পাওয়ার পরেই ইউনুস গাজীর লাশটি ফিরে পেতে সরকারের কাছে দাবি জানিয়েছে পরিবার। ইউনুস গাজী পটুয়াখালী জেলার মহিপুর থানার বিপিনপুর ৪ নম্বর ওয়ার্ডের শুক্কুর গাজীর ছেলে।

ইউনুস গাজীর মেয়ে চম্পা জানান, পটুয়াখালীর মহিপুর থানার বাবুল কোম্পানির মালিকানাধীন এফবি জান্নাত ট্রলারে রহমাতুল্লাহ মাঝির নেতৃত্বে গত ১৫ আগস্ট বঙ্গোপসাগরে মাছ শিকার করতে যায়। এরপরে ১৮ আগস্ট ঝড়ের কবলে পড়ে এবং এর পরের দিন শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে ট্রলারটি উল্টে ডুবে যায়।

এরপর থেকে চম্পার বাবা ইউনুস গাজী নিখোঁজ হন। বাকি ১৪ জেলের বাড়িতে ফিরলেও ৮ দিন কোনো খোঁজ মেলেনি তার বাবা ইউনুস গাজীর। ট্রলারডুবির চারদিন পর ভাসমান অবস্থায় বঙ্গোপসাগর থেকে তার বাবাকে ভারতীয় জেলেরা উদ্ধার করে ভারতের একটি হাসপাতালে ভর্তি করায়।

সেখান থেকে বুধবার ভারতের এক নারী চিকিৎসক তার বাবার খোঁজ দেন। বুধবার সন্ধ্যায় তার বাবার সঙ্গে ভিডিওকলে কথা বলিয়ে দেয়। তখন তার বাবা তাকে তার ছোট ভাইবোনদের দিকে খেয়াল রাখতে বলেন এবং তাদের কোনো দিন সাগরে না পাঠানোর জন্য পরামর্শ দেন।

ভারতের চিকিৎসকের বরাত দিয়ে চম্পা জানান, তার বাবা চারদিন সাগরে ভেসে থাকায় তার শরীরের চামড়া খসে গিয়েছে। দুই দিন আইসিইউতে ভর্তি থাকার পর শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে মৃত্যু হয়।

গোলাম মোস্তফা চৌধুরী বলেন, ইতিমধ্যে ইউনুস গাজী মরদেহের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। আমরা মালিক সমিতির পক্ষ থেকে চাচ্ছি বাংলাদেশ সরকারের মাধ্যমে দেশে ফিরিয়ে আনতে। এ ব্যাপারে সরকারের আন্তরিকতা চাচ্ছি।

সম্পর্কিত খবর

সর্বশেষ খবর

spot_img