30 C
Dhaka

ভাসানচর থেকে পালানোর সময় ১৮ রোহিঙ্গা আটক

প্রকাশিত:

নোয়াখালীর হাতিয়ার ভাসানচর আশ্রয়ণ প্রকল্প থেকে পালানোর সময় কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার চরএলাহী ইউনিয়রে ৩নং ওয়ার্ডের ঘাট থেকে ১৮ রোহিঙ্গাকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয়রা। আটক রোহিঙ্গাদের মধ্যে ৩ পুরুষ, ৩ নারী ও ১২ শিশু রয়েছে।

রোববার সকালে কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে আটক রোহিঙ্গাদের পুনরায় ভাসানচর পাঠিয়েছে কোম্পানীগঞ্জ পুলিশ। এরআগে শনিবার দিবাগত রাত ১১টার দিকে চরএলাহী ৩নং ওয়ার্ডের ঘাট সংলগ্ন বেড়িবাঁধ থেকে তাদের আটক করা হয়।

আটক রোহিঙ্গারা হচ্ছেন- ভাসানচর আশ্রয়ণ প্রকল্পের ৮৫নং ক্লাস্টারের তৈয়ব (৩৮), সামসিদা বেগম (৩২), রেন ওয়ান (১৪), তাসমিন আরা (১২), ইয়াসমিন আরা (১০), মো. আনাস (৮), জেসমিন আরা (৬), মো. ইয়াছের (৪), মো. কাওছার (২), শাহারা বেগম (২৭), সুফিয়া (১২), সুমাইয়া (১০), শাবনুর (৬), ৮৬নং ক্লাস্টারের ইয়াসমিন (৫), আজিজা (১৮), আজিজ খান (১), জাহিদ হোসেন (২২) এবং ৭১নং ক্লাস্টারের এবাদুল্লাহ (৩০)।

স্থানীয়রা জানায়, শনিবার রাতে চরএলাহী ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের ঘাট সংলগ্ন আলমগীরের দোকান এলাকায় শিশুসহ ১৮ জন লোকজন একসাথে ঘোরাঘুরি করছিল। পরে বিষয়টি তাদের সন্দেহ হলে গতিরোধ করে তাদের পরিচয় জানতে চাই। জিজ্ঞাসাবাদে তারা ভাসানচর থেকে পালিয়ে এসেছে বলে স্বীকার করে। পরে উপস্থিত লোকজন তাদের চরএলাহী ইউনিয়ন পরিষদে নিয়ে যায় এবং স্থানীয় জনপ্রতিনিধির মাধ্যমে থানায় খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাদের থানায় নিয়ে যায়।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি মো. সাদেকুর রহমান বলেন, প্রাথমিকভাবে তারা জানিয়েছে দালালের মাধ্যমে কক্সবাজার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে যাওয়ার উদ্দেশ্যে ভাসানচর থেকে পালিয়ে এসেছিল। কিন্তু দালালরা তাদের কক্সবাজার বলে চর এলাহীতে নামিয়ে দিয়ে চলে যায়। সকালে তাদের পুনরায় ভাসানচর পাঠানো হয়েছে।

সম্পর্কিত খবর

সর্বশেষ খবর

spot_img