23 C
Dhaka

মহাকাশেও টিকটক! (ভিডিও)

প্রকাশিত:

পৃথিবীজুড়ে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে টিকটক অ্যাপস। বিশেষ করে ছোট ছোট ভিডিও বানানোর এই প্ল্যাটফর্ম তরুণ প্রজন্ম লুফে নিয়েছে। তরুণ প্রজন্মই শুধু না, বয়সীরাও আছেন এই তালিকায় যারা বিনোদনের মাধ্যম হিসেবে টিকটক অ্যাপ ব্যবহার করে থাকেন।

টিকটক অ্যাপের জন্ম চীনে হলেও চীন ছাপিয়ে সারাবিশ্ব দাপিয়ে এবার মহাকাশেও পৌঁছে গেলো টিকটক। মানে মহাকাশে প্রথমবারের মতো তৈরি হলো টিকটক ভিডিও।

ভিডিওটি করা হয়েছে আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে। এটি করেছেন ইউরোপের নভোচারী সামান্থা। এর আগে আর কখনোই কেউ মহাকাশে টিকটক ভিডিও বানাননি। সেদিক থেকে চিন্তা করলে টিকটকের ইতিহাসে বিরল এক রেকর্ড গড়েছেন নভোচারী সামান্থা।

এর আগেও মহাকাশে গিয়ে রেকর্ড গড়েছিলেন সামান্থা। ইতালির প্রথম নারী নভোচারী তিনি। আজ থেকে আট বছর আগে ২০১৪ সালে প্রথম মহাকাশ ভ্রমণে গিয়েছিলেন তিনি। সেবার একটানা ১৯৯ দিন মহাকাশে অবস্থান করে বিরল রেকর্ড গড়েছিলেন এই নারী নভোচারী। অবশ্য বছর তিনেকের মাথায় তার সেই রেকর্ড ভেঙে যায়। এবার মহাকাশে টিকটক ভিডিপ বানিয়ে সম্পূর্ণ নতুন ধরনের এক রেকর্ড নিয়ে হাজির হলেন তিনি।

এদিকে মহাকাশ স্টেশনে টিকটক ভিডিও বানিয়ে রীতিমতো তারকাখ্যাতি পেয়ে গেছেন সামান্থা। মহাশূন্যে ভেজা টাওয়াল চিপড়ানোর ভিডিও দিয়ে মাত করে দিয়েছেন তিনি। হ্যাপি টাওয়েল ডে শিরোনামের সেই ভিডিও দেখতে হুমড়ি খেয়ে পড়ছেন লাখ লাখ মানুষ।

সম্পর্কিত খবর

সর্বশেষ খবর

spot_img