18 C
Dhaka

মেকআপে না দেখে অমৃতা সিংকে চিনতে পারেননি : সাইফ আলি খান

প্রকাশিত:

অমৃতা সিং-সাইফ আলি খান প্রেমের গল্প: একটা সময় ছিল যখন বলিউড অভিনেত্রী অমৃতা সিং এবং সাইফ আলি খানের প্রেমের গল্প সবার মুখে মুখে ছিল। তবে দুজনেই ২০০৪ সালে ডিভোর্স নিয়ে আলাদা থাকার সিদ্ধান্ত নেন। যদিও এখন দুজনেই নিজ নিজ জীবনে সুখী, কিন্তু আজও সাইফ আলি খান এবং অমৃতা সিংয়ের প্রেমের গল্প খুব বিখ্যাত।

সাইফ যখন অমৃতাকে মেকআপ ছাড়া দেখেছেন :

অমৃতা সিং এবং সাইফ আলি খানের প্রথম ডেট বেশ ফিল্মি ছিল। আসলে, সাইফ যখন অমৃতাকে তার সাথে ডিনারে যেতে ডেকেছিলেন, তখন অমৃতা বলেছিলেন যে তিনি ডিনারে বাইরে যান না। অমৃতা সাইফকে বলেন, তিনি চাইলে তার বাড়িতে রাতের খাবার খেতে আসতে পারেন। দেরি না করে অমৃতার বাড়িতে ডিনারের জন্য পৌঁছে যান সাইফও। সিমি গ্রেওয়ালের শোতে অমৃতা সিং নিজেই এই কাজটি করেছিলেন। একই সময়ে, সাইফ অমৃতার সাথে তার প্রথম ডেট সম্পর্কে বলেছিলেন- ‘আমি যখন অমৃতার বাড়িতে পৌঁছলাম, তিনি তার মেকআপ সরিয়ে নিচ্ছিলেন। আমি তাকে মেকআপ ছাড়া দেখে বেশ অবাক হয়েছিলাম কারণ সে আগের চেয়ে অনেক সুন্দর দেখাচ্ছে। প্রথম ডিনার ডেটে, সাইফ এবং অমৃতা একে অপরের এত কাছাকাছি এসেছিলেন যে তারা যাই হোক না কেন। একই রাতে সাইফ অমৃতাকে প্রস্তাব দেন এবং অভিনেত্রীও দেরি না করে তার প্রস্তাব মেনে নেন।

অমৃতা সিং ও সাইফ আলি খানের প্রথম দেখা হয় ‘ইয়ে দিল্লাগি’ ছবির সেটে। একটি সাক্ষাত্কারে এই বিষয়ে কথা বলতে গিয়ে অমৃতা বলেছিলেন যে ফটোশুটের সময় সাইফ তার কাঁধে হাত রেখেছিলেন এবং অমৃতা তার দিকে তাকিয়ে ছিলেন। সেই সময় সাইফ ইন্ডাস্ট্রিতে নতুন ছিলেন এবং তিনি তার থেকে সিনিয়র ছিলেন। অমৃতা যেখানে প্রথম দর্শনেই সাইফের হৃদয়ে বাসা বেঁধেছিল, অমৃতাও সাইফকে খুব সাহসী বলে মনে করেছিলেন।

তিন মাস ধরে ডেট করছেন সাইফ ও অমৃতা :

 প্রায় ৩ মাস ডেট করার পর ১৯৯১ সালে বিয়ে করেন সাইফ আলি খান ও অমৃতা। সাইফ আলি খান ছিলেন অমৃতা সিংয়ের থেকে ১২ বছরের ছোট। বিয়ের পর সাইফ ও অমৃতা দুই সন্তান সারা আলি খান এবং ইব্রাহিম আলি খানের বাবা-মা হন। যাইহোক, বিয়ের ১৩ বছর পর, ২০০৪ সালে তাদের দুজনের বিবাহবিচ্ছেদ হয়। 

সম্পর্কিত সংবাদ

spot_img

সর্বশেষ সংবাদ

spot_img