20 C
Dhaka

রায়পুরে রাতে দোকান খোলা, ২৭ জনের অর্থদণ্ড

প্রকাশিত:

বিদ্যুৎ সাশ্রয়ে সরকারি আদেশ অমান্য করে রাত ৮টার পর দোকান খোলা রাখায় রায়পুর বাজার, বাসাবাড়ি বাজার ও রাখালিয়া বাজারে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়। এ সময় দণ্ডবিধি, ১৮৬০-এর সংশ্লিষ্ট ধারায় ২৭ জনকে পৃথক মামলায় পাঁচ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করেন আদালত।

রোববার রাত সাড়ে ৮টার দিকে অভিযান পরিচালনা করেন ইউএনও ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) রাসেল ইকবাল।এ সময় সহযোগিতা করেছেন থানার পুলিশ সদস্য।

রায়পুর শহরে ১৫টি ব্যাংক, ২০০ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, প্রায় ৫ হাজার ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান, একটি সরকারি হাসপাতাল, মধ্য ও পূর্ব এশিয়া মহাদেশের বৃহত্তম মৎস্য প্রজনন ও প্রশিক্ষণকেন্দ্র এবং বৃহত্তম নোয়াখালীর একটি বেঙ্গল সু কারখানা রয়েছে।

রায়পুর শহরের কাপড় ব্যবসায়ী ফয়েজ আহাম্মদ বলেন, বিদ্যুৎ সাশ্রয়ে সরকারকে আমাদের সবার সহযোগিতা করা উচিত। কিছু অসাধু ব্যবসায়ী রাত ১০টা পর্যন্ত দোকানপাট খোলা রাখে। আজকে ইউএনওর হঠাৎ অভিযানে ৯টার মধ্যে প্রায় সবাই দোকানের সার্টার বন্ধ করে বাড়িতে চলে গেছেন।

উল্লেখ্য, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সাশ্রয় করতে রাত ৮টার পর থেকে দোকান, বিপণিবিতান ও কাঁচাবাজার বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয় সরকার। সোমবার থেকে এই সিদ্ধান্ত কার্যকর শুরু হয়েছে।

রায়পুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অঞ্জন দাশ বলেন, বিশ্বব্যাপী জ্বালানির দাম বৃদ্ধির কারণে বিদ্যুৎ ও জ্বালানির সাশ্রয় করা দরকার। এ কারণেই এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। তবে বেশ কিছু সেবা খাতকে সিদ্ধান্তের বাইরে রাখা হয়েছে। উপজেলার কোথাও রাত ৮টার পর দোকান খোলা রাখা যাবে না। আমাদের অভিযান চলবে।

সম্পর্কিত সংবাদ

spot_img

সর্বশেষ সংবাদ

spot_img