30 C
Dhaka

শৈলকুপায় মাঠের মধ্যে বৃষ্টির আশায় গ্রামবাসির বিশেষ ইস্তিগফার নামাজ আদায়

প্রকাশিত:

স্টাফ রিপোটার্র : বার্ষার মৌসুম চলে গেছে বৃষ্টি হয়নি। এখন অনাবৃষ্টি ও দাবদাহ চলছে। সর্বত্র টানা খরা। বৃষ্টির জন্য হাহাকার পড়েছে চারদিকে। ফসলি জমি শুকিয়ে গেছে। ফলে আমন আবাদ ব্যাহত হওয়ার শঙ্কা দেখা দিয়েছে। এ অবস্থায় ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার ব্রাহিমপুর গ্রামের মাঠে বৃষ্টি চেয়ে ইস্তিগফার নামাজ ও বিশেষ দোয়া মোনাজাতের আয়োজন করেন গ্রামবাসি।

মঙ্গলবার সকাল ১০ টায় দিকে উপজেলার ব্রাহীমপুর মাঠে এই নামাজ আদায় করেন আলেম উলামা ও ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা ও কৃষক সমাজ। নামাজে অংশ নেওয়া মুসল্লিরা জানান, প্রচণ্ড দাবদাহ ও অনাবৃষ্টির কারণে শুকিয়ে যাচ্ছে মাঠঘাট কৃষিজমি। তীব্র খরায় ফলস উৎপাদন নিয়ে দুশ্চিন্তায় পড়েছেন কৃষক। গরমে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছেন মানুষ। একই গ্রামের শহিদ মোল্লা বলেন, ‘প্রচণ্ড গরম। এই গরমে মানুষ অতিষ্ঠ। বর্ষার মৌসুম চলে গেছে বৃষ্টি হয়নি এখন ভাদ্র মাস তবুও বৃষ্টি নেই বললেই চলে। মাঝেমধ্যে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হয়। এতে ফসল ফলানো যাবে না। কৃষকরা খুব কষ্টে আছেন।’

নামাজ ও দোয়া মোনাজাত পরিচালনাকারী মাওলানা সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘এখন ভাদ্রমাস চলছে, আষাঢ়, শ্রাবণ চলেগেছে কিন্তু বৃষ্টি না হওয়ায় হাহাকার চলছে। কৃষকরা চাষাবাদ করতে পারছেন না। এমন দুর্ভোগ থেকে মুক্তি পেতে ও মহান আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জনসহ আনুগত্য প্রকাশে এই নামাজ আদায় ও দোয়া মোনাজাত করা হয়। আল্লাহ যেন রহমত নাজিল করেন, এটিই আমাদের উদ্দেশ্য।’

সম্পর্কিত খবর

সর্বশেষ খবর

spot_img