31 C
Dhaka

সরকারি স্কুলের শিক্ষিকা রাজনৈতিক দলের পদ পাওয়ায় শোরগোল

প্রকাশিত:

ফরিদপুরের মধুখালী উপজেলার রায়পুর ইউনিয়নের ছকড়িকান্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রাধা রানী ভৌমিক ফরিদপুর জেলা মহিলা লীগের কমিটিতে সদস্য পদ পাওয়ায় শোরগোল উঠেছে।

দুই দশক ধরে শিক্ষকতা করছেন রাধা রানী। পদোন্নতি পেয়ে হয়েছেন প্রধান শিক্ষিকা। অনেক দিন ধরেই তিনি সক্রিয়ভাবে রাজনীতির সঙ্গে জড়িত রয়েছেন। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, মূল পেশা শিক্ষকতার কাজের চেয়ে রাজনীতির পেছনেই তিনি বেশি সময় দেন। ফরিদপুর মহিলা আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক মাহমুদা বেগমের কর্মী হিসেবে রাধা রানী বিভিন্ন রাজনৈতিক কর্মসূচিতে অংশ নেন।

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এই শিক্ষিকা সরকারি বেতনভুক্ত কর্মচারী হওয়া সত্ত্বেও একটি রাজনৈতিক দলের পদ পাওয়ায় তাকে নিয়ে সমালোচনার ঝড় উঠেছে। বিষয়টি সরকারি কর্মচারী আচরণ বিধির সুষ্পষ্ট লঙ্ঘন। সরকারি কর্মচারী আচরণ বিধিমালা-১৯৭৯ এর বিধি ২৫-এ বলা হয়েছে, সরকারি কর্মচারী রাজনৈতিক দল কিংবা অঙ্গসংগঠনের সদস্য হতে পারবেন না। শুধু বাংলাদেশেই নয়, দেশের বাইরেও কোনো রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে অংশ নিতে পারবেন না।

এদিকে আত্মপক্ষ সমর্থন করে রাধা রানী দাবি করেছেন, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সদস্য হলেও এই পদের জন্য তিনি নাকি কোনো আবেদন করেননি। এছাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষিকার চাকরি করে রাজনৈতিক দলের পদ পাওয়া যায় কিনা তা তার জানা নেই।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ফরিদপুর জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা অহিদুল আলম জানান, ঘটনাটি সম্পর্কে তিনি অবগত নন। খোঁজ-খবর নেওয়ার পর অভিযুক্ত শিক্ষিকার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণেরও আশ্বাস দেন শিক্ষা কর্মকর্তা অহিদুল আলম।

সম্পর্কিত খবর

সর্বশেষ খবর

spot_img