31 C
Dhaka

নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ও তার পরিবার

প্রকাশিত:

নীলফামারীর সৈয়দপুরে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও তার পরিবারের জমি দখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সোমবার, ১৭ অক্টোবর দুপুরে উপজেলার বাঙ্গালীপুর ইউনিয়নের নিজ বাসভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে এমন অভিযোগ তোলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা দেওয়ান মো. ইসমাইল হোসেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন মুক্তিযোদ্ধা দেওয়ান মো. ইসমাইল হোসেন। লিখিত বক্তব্যে তিনি উল্লেখ করেন, লক্ষণপুর বাড়াইশালপাড়ার আদর্শপল্লীতে ২০ শতাংশ জমি কিনে বসবাস করে আসছি। দীর্ঘদিন ধরে প্রতিবেশী মো. আব্দুল করিম এ জমির কিছু অংশ জোরপূর্বক দখল করেছেন। শুধু তাই নয়, সীমানা প্রাচীর ভেঙে সুপাড়ি গাছ ও বাশঁঝাড় কেটে আব্দুল করিম আমার বাড়ির সামনের বাকী অংশ দখলের চেষ্টা করে। তখন আশপাশের লোকজন বাধা দিলে তারা পালিয়ে যায়।

মুক্তিযোদ্ধা দেওয়ান মো. ইসমাইল হোসেন আরো বলেন, ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধে নিজের জীবনকে বাজি রেখে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে অস্ত্র হাতে যুদ্ধ করে বাংলাদেশকে স্বাধীর করেছিলাম। আমি যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা। স্বাধীনতার দীর্ঘদিন পরও ভূমিদস্যু আব্দুল করিম এবং তার সহযোগীদের খুন ও গুমের হুমকিতে আমিসহ আমার পুরো পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি।

মুক্তিযোদ্ধা দেওয়ান মো. ইসমাইল হোসেনের অভিযোগ, আব্দুল করিম প্রভাবশালী হওয়ায় ইউনিয়ন চেয়ারম্যানও পক্ষপাতমূলক আচরণ করছেন। তিনি আমাকে একটি নোটিশ দিয়েছেন। সেখানে আমাকে বীর মু্িক্তযোদ্ধা সম্বোধন করেননি। এছাড়া আমাকে পরপর দুটি নোটিশ দেওয়ার কথা উল্লেখ করেছেন। কিন্তু আমি কোনো সাড়া দেইনি বলে এটা সম্পূর্ণরূপে আদালত অবমাননা হয়েছে বলে মিথ্যাচার করেছেন। কিন্তু আমি কোনো নোটিশই পাইনি। আমার জমি উদ্ধার ও দখলমুক্ত করার জন্য প্রশাসনের সহায়তা কামনা করছি।

এদিকে অভিযোগ অস্বীকার করে অভিযুক্ত মো. আব্দুল করিম বলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা দেওয়ান মো. ইসমাইল হোসেনের সব অভিযোগ মিথ্যা এবং বানোয়াট। আমি আমার নিজের জমিতে বাড়ি তৈরি করে বসবাস করছি।

সম্পর্কিত খবর

সর্বশেষ খবর

spot_img